ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ , ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ আর্কাইভস ই পেপার

nogod
nogod
bkash
bkash
uttoron
uttoron
Rocket
Rocket
nogod
nogod
bkash
bkash

মৃত ব্যক্তিকে দিয়ে ঋণের দলিলে স্বাক্ষরের চেষ্টা ব্রাজিলে

আন্তর্জাতিক

আমাদের বার্তা ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০:২৮, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

আপডেট: ২০:৩০, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

সর্বশেষ

মৃত ব্যক্তিকে দিয়ে ঋণের দলিলে স্বাক্ষরের চেষ্টা ব্রাজিলে

ব্রাজিলে একটি উদ্ভট ঘটনা ঘটেছে। একজন মহিলা একজন মৃত ব্যক্তিকে হুইলচেয়ারে করে একটি ব্যাংকে নিয়ে এসেছিলেন। ঐ মহিলা মৃত ব্যক্তিকে ব্যাংকে নিয়ে এসেছিলেন ৩২৫০ এর সমপরিমাণ আমেরিকান ডলার ঋণের ডকুমেন্টে স্বাক্ষর করার জন্য। 

সম্প্রতি ব্যাংকারের সাথে ওই নারীর মুখোমুখি আলাপচারিতার ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পরে দেশব্যাপী সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।

হুইলচেয়ারে করে ব্যাংকে নিয়ে আসা ব্যক্তিটি সম্পর্কে মহিলার চাচা। মহিলা তার মৃত চাচাকে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে নিয়ে যান ঋণের অর্থ।

উত্তোলনের জন্য৷ ঐ সময় স্থানীয় পুলিশ ওই মহিলাকে আটক করে। দক্ষিণ আমেরিকার দেশ- ব্রাজিলের এক শহরে এই ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনাটি ব্যাংকের সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পড়ে। পরবর্তীতে পুরো ঘটনার ভিডিও ফুটেজটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়।

ফুটেজে দেখা যাচ্ছে যে, মহিলাটি ইটাউ ব্যাংকের রিও ডি জেনিরো শাখার (Rio de Janeiro branch of Itau Bank,) কাউন্টারে হুইলচেয়ারে বসে থাকা একজন বয়স্ক ব্যক্তির মাথা উঁচিয়ে দিচ্ছেন এবং ঐ মহিলার হাতের উপরে ঐ ব্যক্তির হাত রেখে একটি কলম আঁকড়ে ধরে ঋণের কাগজপত্রে ঐ বয়স্ক ব্যক্তি স্বাক্ষর করার চেষ্টা করছেন।

পুলিশের মতে, মহিলাটি ৩,৭৫,০০০ টাকার ঋণ নেয়ার চেষ্টা করছিলেন, যা ৩২৫০ ইউএস ডলার এর সমতুল্য। উক্ত ব্যাংক মহিলার চাচা অর্থাৎ বয়স্ক ব্যক্তি বেঁচে থাকার সময় ঋণটি অনুমোদন করেছিল কিন্তু ঋণ বিতরণের পূর্বে ঋণের সংশ্লিষ্ট কাগজে স্বাক্ষর প্রয়োজন। সেই স্বাক্ষরের জন্য ঐ বয়স্ক ব্যক্তিকে ব্যাংকে নিয়ে এসেছিলেন। 

স্বাক্ষর করানোর জন্য মহিলাটি মৃত ব্যক্তিকে হুইলচেয়ারে ঠেলে ব্যাংকে প্রবেশ করান। মৃত ব্যক্তির চোখ বন্ধ ছিল এবং তার মাথা অস্বাভাবিকভাবে হেলছিল। মহিলা মৃত ব্যক্তির মাথা নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করেছিলেন এবং তাকে একটি কলম আঁকড়ে ধরেছিলেন যা দিয়ে ঋণের নথিতে স্বাক্ষর করতে হয়েছিল। যাইহোক, লোকটি প্রতিক্রিয়াহীন রয়ে গেল, তার বাহু অলস ছিল, এবং তার মাথা পিছনে পড়তে থাকে।

ব্যাংকের কর্মচারীদের থেকে সুবিধা নেয়ার বা ফেভার পাওয়ার জন্য ঐ মহিলা তার চাচাকে তখন বলতেছিলেন, আঙ্কেল পাওলো, আপনি কি শুনছেন? আপনার আরো একটি স্বাক্ষর করতে হবে. আপনি এই স্বাক্ষর না করলে ঋণের টাকা তুলতে পারবেন না। তবে, আমি আপনার জন্য এই স্বাক্ষর করতে পারি না. এটা আপনার ঋণ তাই আপনার স্বাক্ষর দরকার, আপনাকেই স্বাক্ষর করতে হবে. আমি যা করতে পারি, তা করেছি।

ঐ মহিলা তার মৃত চাচাকে আরও বলেছিলেন, আন্কেল, দয়াকরে এটিতে স্বাক্ষর করুন; আমার মাথা ব্যাথা বেড়ে যাচ্ছে। তাড়াতাড়ি স্বাক্ষর করে নিন, রেজিস্ট্রি অফিসে যেতে হবে। আমি আর নিতে পারছি না।

এই সব দেখে, রিও ডি জেনিরো ব্যাঙ্কের কর্মচারীরা সন্দেহজনক হয়ে ওঠে এবং জরুরি পরিষেবাগুলিকে কল করে। জরুরী পরিষেবার কর্মীরা এসে পৌঁছালে, তারা নির্ধারণ করে যে- লোকটি মৃত, এবং কয়েক ঘন্টা পূর্বেই সে মারা গেছে।

এটি আবিষ্কারের পর, রিওর পশ্চিম দিকে বাঙ্গুর প্রদেশের পুলিশ, প্রতারণার মাধ্যমে চুরির চেষ্টা এবং একটি মৃতদেহকে অপবিত্র করার জন্য মহিলার বিরুদ্ধে মামলা করেছে। কীভাবে বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

রিও ডি জেনিরো সিভিল পুলিশ প্রধান ফ্যাবিও লুইস সুজা বলেছেন যে, ব্যাংকের কর্মচারীরা তাদের সন্দেহের কারণে প্যারামেডিকদের কল করেছিল। প্যারামেডিকরা এসে পৌঁছলে তারা উপসংহারে পৌঁছেছে যে লোকটি কয়েক ঘন্টা পূর্বে মারা গেছে।

এদিকে, মহিলার পারিবারিক আইনজীবী সিএনএন নিউজ জানিয়েছে যে, বৃদ্ধ ব্যক্তি জীবিত অবস্থায় ব্যাংকে পৌঁছেছেন এবং ব্যাংকে অবস্থান করা অবস্থায় সে মারা গেছেন। এই বিষয়টিতে ঐ মহিলা অত্যন্ত কষ্ট পেয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন।

জনপ্রিয়