ঢাকা সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪ , ৪ আষাঢ় ১৪৩১ আর্কাইভস ই পেপার

nogod
nogod
bkash
bkash
uttoron
uttoron
Rocket
Rocket
nogod
nogod
bkash
bkash

কিরঘিজস্তানে কেনো পড়তে যাওয়া

শিক্ষা

আমাদের বার্তা ডেস্ক

প্রকাশিত: ০০:০০, ২৪ মে ২০২৪

সর্বশেষ

কিরঘিজস্তানে কেনো পড়তে যাওয়া

এশিয়ার মধ্যভাগে পাহাড়ে ঘেরা দেশ কিরঘিজ়স্তান। মধ্য এশিয়ার দুর্গম পার্বত্য অঞ্চলে অবস্থিত এই দেশটি সম্প্রতি খবরের শিরোনাম হয়েছে বিদেশী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার কারণে। বাংলাদেশি কয়েকশ শিক্ষার্থীও সেখানে আটকা পড়েন। কিন্তু, বিশ্বের অনেক উন্নত দেশ ছেড়ে কেনো অপেক্ষাকৃত দুর্বল অর্থনীতির এই দেশটিতে ছুটছেন শিক্ষার্থীরা। 

জানা গেছে, বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও ভারতসহ দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর শিক্ষার্থীদের মাঝে এই দেশটি বেশ জনপ্রিয়। মধ্য এশিয়ার এই দুর্গম দেশটিতেই প্রতি বছর হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রী ডাক্তারি পড়তে যান। তাদের প্রতি কিরঘিজরা অতিথিপরায়ণ বলেই জানা যায়। তবে এবার বিদেশি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার নেপথ্যে রয়েছে একটি ভিডিয়ো। গত ১৩ মে যা সমাজমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিয়োটি দেখার পর থেকে কিরঘিজ়স্তানে পড়তে যাওয়া বিদেশি পড়ুয়াদের উপর সে দেশের তরুণ প্রজন্ম ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে।

ভাইরাল ভিডিয়োয় স্থানীয় কিরঘিজ় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কিছু বিদেশি পড়ুয়াকে বচসা করতে দেখা গিয়েছিল। মূলত পাকিস্তানি ও মিশরীয় শিক্ষার্থীদের সঙ্গেই বচসা হয়েছিল কিরঘিজ়দের। 

এই ভিডিয়ো ঘিরে কিরঘিজ়স্তানের রাজধানীর বিশকেকে উত্তেজনা তৈরি হয়। স্থানীয়দের অভিযোগ, সেখানকার প্রশাসন বিদেশি শিক্ষার্থীদের প্রতি একটু বেশিই নরম মনোভাবাপন্ন। তাই তাঁদের ‘শিক্ষা’ দিতে তাঁরা নিজেরাই পথে নামেন।
বিশকেকের নামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস, হোস্টেল, মেসগুলি ঘিরে ফেলেন কিরঘিজ়রা। বিদেশি পড়ুয়াদের চিহ্নিত করে শুরু হয় মারধর। মূলত এই আক্রমণের লক্ষ্য ছিলেন দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার পড়ুয়ারা। আক্রান্ত হন পাকিস্তানি, বাংলাদেশি ও ভারতীয় ছাত্রছাত্রীরা।

কিরঘিজ়স্তানের পরিস্থিতি নিয়ে একাধিক গুজব ছড়ায় সমাজমাধ্যমে। কেউ কেউ বলতে আরম্ভ করেন, কিরঘিজ়স্তানে স্থানীয়দের আক্রমণে তিন পাকিস্তানি পড়ুয়ার মৃত্যু হয়েছে। তবে সেই গুজব উড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। বিশকেকের পুলিশ জানিয়েছে, ১৭ মে রাতের ঘটনায় বেশ কয়েক জন স্থানীয় যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কিন্তু কেনো আমেরিকা, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়ার মতো নামী ও উন্নত দেশ ছেড়ে মধ্য এশিয়ার এই তুলনামূলক অখ্যাত দেশে ভারত, বাংলাদেশ ও পাকিস্তান থেকে হাজার হাজার পড়ুয়া ডাক্তারি পড়তে যান? কী আছে কিরঘিজ়স্তানে?

উত্তর একটাই, সাশ্রয়। কিরঘিজ়স্তানে অনেক কম খরচে ডাক্তারি পড়া যায়। সেই এমবিবিএস ডিগ্রি আমেরিকা বা ব্রিটেনের ডিগ্রির চেয়ে কোনো অংশে কম নয়। কারণ, সেই ডিগ্রিকে মান্যতা দেয় খোদ জাতিসংঘ। 

পরিসংখ্যান বলছে, বর্তমানে প্রায় ১৫ হাজার ভারতীয়, ১১ হাজারের বেশি পাকিস্তানি এবং হাজারের বেশি বাংলাদেশি পড়ুয়া উচ্চ শিক্ষার সূত্রে কিরঘিজ়স্তানে রয়েছেন।
কিরঘিজ়স্তানের বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ডাক্তারি পড়তে ছ’বছরে তিন থেকে পাঁচ হাজার আমেরিকান ডলার খরচ হয়ে থাকে। তার মানে, মাত্র চার কি সাড়ে চার লাখ টাকায় ছয় বছরের ডাক্তারি পড়া শেষ করা যায় সেখানে। সস্তায় এমবিবিএস ডিগ্রি লাভের আশায় তাই উপমহাদেশের পড়ুয়ারা কিরঘিজ়স্তানে ভীড় করেন। ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর এই প্রবণতা আরো বেড়েছে। 

জনপ্রিয়