ঢাকা সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ , ২৩ মাঘ ১৪২৯ আর্কাইভস ই পেপার

১০ ডিসেম্বর অবশ্যই ঢাকায় গণসমাবেশ হবে: ফখরুল

জাতীয়

আমাদের বার্তা ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০:২০, ৬ ডিসেম্বর ২০২২

সর্বশেষ

১০ ডিসেম্বর অবশ্যই ঢাকায় গণসমাবেশ হবে: ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ১০ ডিসেম্বর অবশ্যই ঢাকায় সমাবেশ হবে। এ সমাবেশ নিয়ে মনে কোনো দ্বিধা না রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। তিনি বলেছেন, সমাবেশ থেকে মানুষ নতুন স্বপ্ন দেখবে। এখান থেকেই মানুষ নতুন কর্মসূচি নিয়ে আরও তীব্রভাবে মাঠে নামবে। জনগণের সরকার যাতে প্রতিষ্ঠিত হয়, সেই কাজ তারা করবে।

আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গুলশানের একটি হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন। ‌বিএনপির পক্ষ থেকে আয়োজিত অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা, বুদ্ধিজীবী, সুশীল সমাজ, পেশাজীবী ও বিদেশি কূটনীতিকেরা উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপির মহাসচিব অভিযোগ করে বলেন, জনগণ যখন তাদের দাবি আদায়ে স্বতঃস্ফূর্তভাবে নামতে শুরু করেছে, এটাকে বন্ধ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী আরেকটি হীন চক্রান্ত শুরু করেছেন।

মির্জা ফখরুলের ভাষ্য, ‘আমরা ইতিমধ্যে পত্রপত্রিকায় দেখেছি, বিভিন্নভাবে খবর পেয়েছি, প্রায় ২০০টা বাস বিভিন্নভাবে প্রস্তুত করা হয়েছে পুড়িয়ে দেওয়ার জন্য। এটা অসমর্থিত কিছু সূত্র থেকে পাওয়া খবর। ইতিমধ্যে কিছু আলামত আমরা পেয়েছি। ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নামধারী কিছু সন্ত্রাসীকে প্রতিটি ওয়ার্ড ও থানায় নামিয়ে দিয়ে সেখানে তারা (আওয়ামী লীগ) সন্ত্রাস প্রতিরোধ করবে। তখন থেকেই এ ব্যাপারে আমরা সচেতন হয়েছি, সজাগ হয়েছি।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘এ জন্য এই সেমিনারের মাধ্যমে সুশীল সমাজ, বুদ্ধিজীবী, রাজনৈতিক দল ও কূটনীতিকদের জানাতে চাই, সরকার আবার পুরোনো খেলা শুরু করেছে। উদোর পিণ্ডি বুধোর ঘাড়ে চাপানোর জন্য আবার তিনি (প্রধানমন্ত্রী) কাজ শুরু করেছেন।’

অনুষ্ঠানে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, সরকার ভীত হয়ে এখন আবোলতাবোল বলছে। ১০ তারিখে সরকারকে বিদায় করার জন্য কর্মসূচি আসবে। সরকার টিকে থাকার জন্য সর্বশেষ কামড় দিতে পারে, তবে এবার আর বিএনপিকে দমাতে পারবে না।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান বলেন, গত ১৪ বছরে যেভাবে বিরোধীদের মনে ভয় ঢুকিয়ে দিতে চেয়েছিল সরকার, সেই ভয় এখন নিজেরাই পেয়েছে। মিথ্যাচার করে জনগণের ইচ্ছা প্রতিরোধ করতে পারবে না, এটা বুঝতে পেরেই সমাবেশ বন্ধ করার জন্য বিভিন্ন ফন্দি করছে।


মঈন খান আরও বলেন, ‘আমরা যাতে সমাবেশ করতে না পারি, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে কাজে লাগাচ্ছে। তবে আমাদের ভয়ভীতি কেটে গেছে। আমরা আমাদের সমাবেশ করব। এটা আমাদের সাংবিধানিক অধিকার। সরকার যত কিছুই করুক না কেন, সমাবেশ আমরা করব।’

জনপ্রিয়