ঢাকা শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪ , ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ আর্কাইভস ই পেপার

nogod
nogod
bkash
bkash
uttoron
uttoron
Rocket
Rocket
nogod
nogod
bkash
bkash

বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত বাংলাদেশ-আয়ারল্যান্ড ম্যাচ

খেলা

ক্রীড়া ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:৩২, ২০ মার্চ ২০২৩

সর্বশেষ

বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত বাংলাদেশ-আয়ারল্যান্ড ম্যাচ

বাংলাদেশ-আয়ারল্যান্ড দ্বিতীয় ওয়ানডেতে যে বৃষ্টি হবে, এমন পূর্বাভাস আগেই ছিল। তবে বাংলাদেশের ইনিংসের মাঝপথে বৃষ্টি হানা না দিলেও, প্রথম ইনিংস শেষেই শুরু হয় মুষলধারে বৃষ্টি। আর শেষমেষ বৃষ্টির দাপটেই পরিত্যক্ত হয় বাংলাদেশের রেকর্ডময় ম্যাচটি।

আজ সোমবার (২০ মার্চ) সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে রেকর্ড ৩৪৯ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় স্বাগতিক বাংলাদেশ। তবে বাংলাদেশের ইনিংস শেষেই সিলেটের মাঠে বৃষ্টির হানা। যার ফলে বন্ধ হয়ে যায় খেলা। রাত ৮টা ৪০ পর্যন্ত অপেক্ষা করে শেষমেষ ম্যাচ পরিত্যক্ত বলে ঘোষণা করেন আম্পায়ার।

নিয়ম অনুযায়ী অন্তত ২০ ওভার খেলা না হলে ম্যাচের ফলাফল নির্ধারণ করা সম্ভব নয়। তাই রাত ৯টা ৩৩ মিনিট পর্যন্ত ছিল কাট অফ টাইম। এর মানে উক্ত সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করার কথা ছিল আম্পায়ারদের। তবে বৃষ্টির মাত্রা এতটাই বেশি ছিল যে, রাত সাড়ে ৯টার আগেও খেলা শুরু করা একপ্রকার অসম্ভব ছিল। তাই শেষমেষ খেলা পরিত্যক্ত করতে বাধ্য হন আম্পায়াররা।’

এর আগে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে শুরুতে লিটন-শান্তদের ফিফটি ও শেষের দিকে মুশফিকের সেঞ্চুরিতে ৩৪৯ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে বাংলাদেশ। যা বাংলাদেশের ওয়ানডে ইতিহাসের সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ।

আগে ব্যাটিংয়ে নেমে সাবধানী শুরু করে দুই ওপেনার তামিম-লিটন। প্রথম ওয়ানডেতে নিজেদের সুনাম ধরে রাখতে পারেননি এই দুই ব্যাটার। তাই দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দেখেশুনে শুরু করেন তারা। একটা সময় বড় জুটি গড়ার আশাও জাগিয়ে তোলেন। তবে, দলীয় ৪২ রানের মাথায় রানআউট হয়ে সাজঘরে ফিরতে হয় তামিমকে। ৩১ বলে ২৩ রান করে মাঠ ছাড়েন বাঁহাতি এই ব্যাটার।

তামিমের বিদায়ের পর শান্তকে নিয়ে জুটি গড়ে তোলেন লিটন। তুলে নেন ৫৪ বলে ক্যারিয়ারের অষ্টম ফিফটি। দলীয় ১৪৩ রানে ৭১ বলে ৭০ রানের কার্যকরী ইনিংস খেলে মিডউইকেটে ম্যাকব্রাইনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন লিটন। লিটনের বিদায়ের পর সাকিবকে নিয়ে জুটি গড়েন নাজমুল শান্ত। তুলে নেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের তৃতীয় ফিফটি।

প্রথম ওয়ানডেতে দুর্দান্ত খেললেও এই ম্যাচে নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি সাকিব। দলীয় ১৮২ রানে আউট হয়েছেন ১৯ বলে ১৭ রান করে। সাকিবের বিদায়ের পর থিতু হতে পারেননি আরেক ব্যাটার শান্ত। ব্যক্তিগত ৭৩ রান করে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন শান্ত। যা ওয়ানডেতে তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান।

শান্তর বিদায়ের পর মুশফিককে নিয়ে শতরানের জুটি গড়েন তাওহিদ হৃদয়। তাওহিদের দুর্দান্ত ব্যাটিং ও মুশফিকের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে রেকর্ড সংগ্রহ দাঁড় করাতে খুব বেশি সমস্যা হয়নি স্বাগতিকদের। তবে প্রথম ম্যাচের পর দ্বিতীয় ম্যাচেও ফিফটির সুযোগ ছিল হৃদয়ের। তবে ফিফটির আক্ষেপ নিয়ে ফিরতে হয় ডানহাতি এই ব্যাটারকে। দলীয় ৩১৮ রানে ব্যক্তিগত ৪৯ রানে ফেরেন হৃদয়। এরপর লোয়ার অর্ডারদের নিয়ে স্কোরবোর্ড সচল রাখেন মুশফিক। ক্যারিয়ারের নবম সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ব্যক্তিগত ১০০ রানে অপরাজিত ছিলেন ডানহাতি এই ব্যাটার। আয়ারল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ২টি উইকেট নিয়েছেন হিউম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর 

বাংলাদেশ : ৫০ ওভারে ৩৪৯/৬ (তামিম ২৩, লিটন ৭০, শান্ত ৭৩, সাকিব ১৭, মুশফিক ১০০*, হৃদয় ৪৯, ইয়াসির ৭, তাসকিন ১* ; অ্যাডাইর ১০-১-৬০-১, হিউম ১০-২-৫৮-৩, ক্যাম্পার ১০-০-৭৩-১, হামফ্রেইস ৭-০-৫৯-০, ম্যাকব্রাইন ৯-০-৬৮-০, টেক্টর ৪-০-২৮-০)

ফলাফল : বৃষ্টিতে ম্যাচ পরিত্যক্ত

জনপ্রিয়