ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ , ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ আর্কাইভস ই পেপার

nogod
nogod
bkash
bkash
uttoron
uttoron
Rocket
Rocket
nogod
nogod
bkash
bkash

তীব্র তাপপ্রবাহের ভেতরই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে আজ

শিক্ষা

আমাদের বার্তা প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০০:৩০, ২০ এপ্রিল ২০২৪

সর্বশেষ

তীব্র তাপপ্রবাহের ভেতরই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে আজ

তিন দিনের জন্য হিট অ্যালার্ট জারি করেছে আবহাওয়া অফিস। দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া তাপপ্রবাহ আরো তীব্র হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি আরো বাড়তে পারে বলেও জানিয়েছে। কিন্তু, এমন পরিস্থিতিতেই আগামীকাল রোববার খুলছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এ প্রতিবেদন লেখা অবধি স্কুল বন্ধ বা সকালের শিফট চালুর কোনো নির্দেশনা দেয়নি শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তাই তীব্র গরমে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছেন অভিভাবকরা।

আবহাওয়াবিদ ড. মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক গতকাল শুক্রবার এক সতর্কবার্তায় জানিয়েছেন, দেশের ওপর দিয়ে চলমান তাপ প্রবাহ ১৯ এপ্রিল থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টা অব্যাহত থাকতে পারে এবং তাপমাত্রা আরো বৃদ্ধি পেতে পারে।

অন্য এক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, তীব্র তাপের কারণে সৃষ্ট লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এর প্রভাবে আগামীকাল রোববার সকাল থেকে সোমবার ২২ এপ্রিল সকাল পর্যন্ত ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম এবং সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকাঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি, বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলা বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি বৃদ্ধি পেতে পারে। 

প্রসঙ্গত, তীব্র দাবদাহের কারণে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সরকারি স্কুলগুলোতে চলতি মাসের ২২ তারিখ থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। একইসঙ্গে, বেসরকারি স্কুলগুলোকেও এই ছুটি এগিয়ে আনার কথা বিবেচনা করতে বলা হয়েছে। তীব্র দাবদাহের কারণে গরমের ছুটি এগিয়ে আনা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তরের তরফে একটি বিবৃতি জারি করে এই খবর জানানো হয়ে।

পশ্চিমবঙ্গের ওই সিদ্ধান্তের কথা স্মরণ করিয়ে অভিভাবকরা বলছেন, বাংলাদেশেও তাপপ্রবাহ না কমা অবধি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করা হোক।

উল্লেখ্য, পবিত্র রমজান, স্বাধীনতা দিবস ও ঈদুল ফিতরসহ বেশ কয়েকটি ছুটি শেষে কাল ২১ এপ্রিল থেকে বাংলাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলছে।

প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাদরাসা ও কলেজে ছুটি আগে থেকে শুরু হলেও খুলবে একই দিনে এবং নিয়মিত পাঠদান শুরু হবে।

জানা গেছে, গত ২৬ মার্চ দেশের সব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ছুটি শুরু হয়। এর একদিন আগে ২৫ মার্চ কলেজগুলো ছুটিতে বন্ধ হয়েছিলো। আর প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাদরাসায় ছুটি শুরু হয়েছিলো ২২ মার্চ।

প্রাথমিক ও মাদরাসায় ছুটির তালিকা অনুযায়ী মার্চ মাসের ১০ তারিখ থেকে এবং মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রায় এক মাসের ছুটি শুরুর কথা ছিলো। তবে শিখন ঘাটতি পূরণে প্রাথমিকে ১০ দিন খোলা রাখার সিদ্ধান্ত জানায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি মাধ্যমিকে ১৫ দিন কমিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

পরে রোজার মধ্যেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখার বিষয়ে উচ্চ আদালতে রিট হলে দফায় দফায় সিদ্ধান্ত আসতে থাকে। পরে আপিল বিভাগ মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ছুটি সমন্বয় করে রোজায় ১৫ দিন মাধ্যমিক বিদ্যালয় খোলা রাখার পক্ষে রায় দেন।

পাশাপাশি মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১০ দিন ছুটি কমানো হয়। এ ছাড়া দেশের সরকারি-বেসরকারি কলেজগুলোতে ২৫ মার্চ থেকে এবং মাদরাসায় ২২ মার্চ থেকে ছুটি শুরু হলেও সবমিলিয়ে শ্রেণিকক্ষে নিয়মিত পাঠদান শুরু হবে আগামীকাল ২১ এপ্রিল রোববার।

জনপ্রিয়