ঢাকা সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪ , ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ আর্কাইভস ই পেপার

nogod
nogod
bkash
bkash
uttoron
uttoron
Rocket
Rocket
nogod
nogod
bkash
bkash

নতুন শিক্ষাক্রমের অপপ্রচারে আইনি ব্যবস্থার হুঁসিয়ারি এনসিটিবির 

শিক্ষা

আমাদের বার্তা প্রতিবেদক 

প্রকাশিত: ০০:০০, ৪ ডিসেম্বর ২০২৩

সর্বশেষ

নতুন শিক্ষাক্রমের অপপ্রচারে আইনি ব্যবস্থার হুঁসিয়ারি এনসিটিবির 

নতুন শিক্ষাক্রম নিয়ে অপপ্রচার করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া কিছু লোকের হাঁসের ডাক বা ব্যাঙের লাফ দেয়ার ভিডিয়ো নতুন শিক্ষাক্রমের প্রশিক্ষণের নয় বলে জানানো হয়েছে। মিথ্যা প্ররোচনায় বিভ্রান্ত না হতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়ে এ ধরনের মিথ্যা তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড ও তা শেয়ার বা কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে বোর্ডের পক্ষ থেকে। 

গতকাল রোববার জারি করা এক বিজ্ঞপ্তিতে সর্বসাধারণের প্রতি এ আহ্বান জানায় এনসিটিবি। 
এনসিটিবি সচিব নাজমা আখতার স্বাক্ষরিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, স্বার্থান্বেষী একটি গোষ্ঠী সম্প্রতি নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম সম্পর্কে মিথ্যা তথ্য পরিবেশন ও ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে জনমনে বিরূপ মনোভাব সৃষ্টির চেষ্টা চালাচ্ছে। এর অংশ হিসেবে সাধারণ মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লাগে এমন বিষয় বা আমাদের জাতীয় সংস্কৃতি ও মূল্যবোধের পরিপন্থি কাজকে শিক্ষাক্রমের বলে প্রচার করা হচ্ছে। নবীর ছবি আঁকতে বলা হয়েছে লিখে মিথ্যাচার করা হচ্ছে। হিন্দি গানের সঙ্গে স্কুলের পোশাক পরা কিছু ছেলেমেয়ে ও ব্যক্তির অশ্লীল নাচ আপলোড করে বলা হচ্ছে শিক্ষাক্রমের নির্দেশনা-যা মিথ্যা। 

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, কিছু লোক ব্যাঙের লাফ বা হাঁসের ডাক দিচ্ছেন এমন ভিডিয়ো আপলোড করে বলা হচ্ছে, এটা নতুন শিক্ষাক্রমের শিক্ষক প্রশিক্ষণের অংশ, যা সম্পূর্ণ মিথ্যাচার। নতুন শিক্ষাক্রমে সব ধর্ম বর্ণের মানুষের প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান প্রদর্শনের কথা বলা হয়েছে। আমাদের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতিকে ভবিষ্যত প্রজন্মের মধ্যে বিকশিত করার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। মিথ্যা অপপ্রচারের মাধ্যমে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রমকে বিপন্ন করার প্রচেষ্টা যারা করছেন তাদের এরূপ কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য সতর্ক করা যাচ্ছে। 

এনসিটিবি বলছে, শিক্ষাক্রমের কোনো ত্রুটিবিচ্যুতি থাকলে তা আমাদের জানালে আমরা অবশ্যই তা বিবেচনা করে প্রয়োজনীয় সংশোধন পরিমার্জন করবো। কিন্তু অপপ্রচার করলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 
এনসিটিবি আরো জানায়, প্রাক প্রাথমিক থেকে উচ্চ মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক প্রণয়নের একমাত্র জাতীয় প্রতিষ্ঠান এনসিটিবি দেশের মানসম্পন্ন শিক্ষা উন্নয়ন ও প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।
প্রসঙ্গত, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নতুন শিক্ষাক্রমের নাম দিয়ে একাধিক ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। একটি ভিডিয়োতে একাধিক ব্যক্তিকে হাঁসের ডাক নিয়ে অভিনয় করতে দেখা যায়। আরেকটি ভিডিয়োতে সাইকেল চালানোর অভিনয় দেখানো হয়েছে।

গতকাল রোববার সকালে রাজধানীর বাংলামোটরে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, নতুন শিক্ষাক্রম নিয়ে ভয়ঙ্কর মিথ্যাচার করা হচ্ছে। যা শিক্ষাক্রমের অংশ নয়, আমাদের প্রশিক্ষণেরও অংশ নয়, এমন ভিডিয়োসহ বিভিন্ন বিষয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়ে নতুন শিক্ষাক্রম নিয়ে ব্যাপকভাবে মিথ্যাচার করা হচ্ছে। অতীতের কোনো প্রশিক্ষণে (যা মাধ্যমিকের নয়) প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্বুদ্ধ করতে বিনোদনের অংশ হিসেবে নিজেরা নিজেরা যে প্র্যাকটিস করেছে সেই ভিডিয়ো সামাজিক যোগোযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়ে বলা হচ্ছে, এইগুলো প্রশিক্ষণ। এমনকি নতুন ভিডিও তৈরি করেও ছড়িয়ে দিয়ে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে।

জনপ্রিয়